বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
Proval Logo

অনিশ্চিত ক্রিকেট ভবিষ্যত

প্রকাশিত - ১১ জুন, ২০২৪   ০৯:৪৭ পিএম
webnews24

মেজর চাকলাদার (অব.) : আমেরিকা আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ মিলে এবারের বিশ্বকাপ আয়োজক।আমেরিকা মানেই নাক উচা উচা ভাব। ভাল পিচ নাই, কুচ পরোয়া নেই, অস্ট্রেলিয়া থেকে ড্রপ ইন পিচ এনে বসিয়ে দিয়ে খেলা চালু করল। এই ড্রপ ইন পিচে রান উঠে না, টি-২০ মানেই ধুম ধারাক্কা পিটাও। কিন্তু এবার আমদানী করা পিচে সেই মজা উধাও। টি-২০ তাই টেস্ট খেলার গন্ধ।

চার গ্রুপ থেকে পরের রাউন্ডে যাবার ভিসা প্রায় রেডি। ভিসার কথা আসাতে নেপালের ক্যাপ্টেন লামিচানের নাম করতেই হয়। ধর্ষণ কান্ড ঘটিয়ে জেলে যেতে হয়েছিল। তুখোর স্পিনার; তাকে দলে যাবার সুযোগ দেয় নেপাল সরকার কিন্তু বেকে বসে আমেরিকা। সে দেশের কঠোরতায় ভিসা পায়নি। তবে যে দুটি নেপালের খেলা ওয়েস্ট ইন্ডিজে; সেখানে ভিসা পেয়ে খেলবে।

বাংলাদেশ গতকাল হেরে গেল দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে। লো স্কোরিং ম্যাচ। ১১৩ টার্গেট করতে গিয়ে ১০৯ তে ধপাস বাংলাদেশ। আউট ফিল্ড মন্থর। এ জন্য রান তারা করতে পারে নাই। আমাদের ক্রিকেটে আলিবাবার গুপ্তধন নিয়ে সাকিব বিশ্ব ত্রাস। কিন্তু এখন আর ঝকমক করতে পারছেনা। ক্রিকেট থেকে বাইরে মন দেয়াতে এই নিচে পতন। করেছে মাত্তর এক ওভার বল দিয়েছে ছয় রান আর ব্যাটে চার বলে তিন রান করে লোপ্পা ক্যাচ দিয়ে বিদায়। সাকিবকে দুই একটি ম্যাচ বসিয়ে দিলে তার মধ্যে একটা নাড়া খাবে।

বাংলাদেশ হেরেছে দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে তবে নেদারল্যান্ড বা নেপাল এদের সাথে জিতবেই আর পরবর্তি রাউন্ডে যাবেই। আমাদের শান্ত অধিনায়ক। কি দেখে তাকে অধিনায়ক করা হলো? জবাব চাইতেই পারি। গ্রুপ 'এ' তে  ভারত আর যুক্তরাষ্ট্র পরের রাউন্ডে যাবে। এই গ্রুপে পারিস্তানও আছে, আদরে আর প্রচারে এই দলটি পুরোপুরি জিন্দা লাশ, আগামীতে এদের খোল নলচে সব পাল্টানো প্রয়োজন। রিজওয়ান ভাল ব্যাট, বুমরা এ মুহূর্তে ফর্মের তুংগে। তাকে কি দরকারে ছয় মারতে গেল এবং আউট ।

বিশ্বকাপ আশা নেই পাকিস্তানের। বাংলাদেশ এদেরকে ওয়াশিং মেশিনে ফেলে আচ্ছা ধোলাই দিয়ে তারপর জন সমক্ষে আনা উচিত। আমি মনে করি আফগানিস্তান এবার ফাইনাল খেলা উচিত। বিশ্ব শ্রেষ্ঠ স্পিনার আছে। আছে দেশে কঠোর শাসন আর দলীয় শৃঙ্খলা তাদেরকে ক্রিকেট-সম্মান এনে দিচ্ছে। দেশটিতে সারাক্ষণ ঝড় ঝাপটা। একদিকে রাশিয়া আর দিকে ভারত দুই দেশের মধ্যে এরা বাফার স্টেট। তবে কোন দিনও কারো দ্বারা পদানত হয় নি। স্বাধীন চেতা এই জাত আগামীর ক্রিকেট শাসন করবে।

আমাদের শাসকরা চিপ পুলারিটির জন্য ক্রিকেট খেলোয়াড়দের অতিরিক্ত আদর স্নেহে আপ্লুত করতে গিয়ে তাদের ক্যারিয়ার নষ্ট করে। সাকিব তার প্রমাণ। ক্রিকেট এই বিশ্বকে এক পরিবারে নিয়ে আসার আগামীর মাইল স্টোন।

ক্রিকেট দেখেই মনে হয় কবি এমনটা লিখেছিলেন।
হেথা আর্য, হেথা অনার্য
হেথায় দ্রাবিড়  চীন
শক হূন দল পাঠান মোগল
এক দেহে হল লীন।

লেখক : সাবেক অধিনায়ক জাতীয় হকি দল , জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার বিজয়ী এবং কলামিস্ট

প্রভাত/এএস
 

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন
ওয়েব নিউজ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আরও পড়ুন